দেবিদ্বারে পুলিশ পরিচয়ে স্বামী স্ত্রী অপহরণ : গ্রেফতার : ২

দেবিদ্বার প্রতিনিধি:
দেবিদ্বারে এবার পুলিশ পরিচয়ে স্বামী-স্ত্রীকে অপহরনের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর অপরহরনকারীরা স্বামীকে মারধর করে রাস্তায় ফেলে দিয়ে তার স্ত্রীকে ঢাকায় নেয়ার পথে দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাজার থেকে স্থানীয় লোকজন অপহৃত গৃহবধূ আছমা আক্তারকে (১৮) উদ্ধার এবং অপহরনকারী নাজমুলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। পরে বৃহস্পতিবার (০৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় দেবিদ্বার থানা পুলিশ উপজেলা সদর থেকে ওই অপহরনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আহসান হাবিব কাজল নামের আরো এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ ও উদ্ধারকৃত দম্পতি জানান, গত বুধবার রাতে দেবিদ্বার উপজেলার পদ্মকোট গ্রামের গ্রামপুলিশ ইসমাইল হোসেনের বাড়িতে গিয়ে অপহরনকারী নাজমুল হাসান (২৪), জহির (৩৫), আহসান হাবীব (৩৫) এবং অজ্ঞাতনামা আরো ২ ব্যক্তি পুলিশ পরিচয়ে তার ছেলে মফিজুল ইসলাম এবং তার স্ত্রী আছমা আক্তারকে মামলার কথা বলে আটক করে নিয়ে আসে। এরপর দেবিদ্বার উপজেলা সদরের মহিলা কলেজের কাছে স্বামী মফিজকে অপহরনকারীরা মারধর করে রাস্তায় ফেলে দিয়ে তার স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যায় । গভীর রাতে ওই গৃহবধূকে নিয়ে অপহরনকারীরা দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাজারে গিয়ে সিএনজি বেবীটেক্সি থামালে ওই মহিলা স্থানীয়দের বিষয়টি অবহিত করলে স্থানীয় লোকজন নাজমুলকে আটক করে। গ্রেফতারকৃত নাজমুল হাসানের বাড়ি মুরাদনগর উপজেলার পাহাড়পুর এবং আহসান হাবিব কাজলের বাড়ি একই উপজেলার ধামঘর গ্রামে। এ ব্যাপারে মফিজুল ইসলাম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দেবিদ্বার থানায় অপহরণ ও নারী নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনোয়ার উল্লাহ জানান, ওই অপহরন ঘটনার সাথে জড়িত অপর ২ আসামীকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...