BIGtheme.net http://bigtheme.net/ecommerce/opencart OpenCart Templates
Home / প্রচ্ছদ / কুমিল্লা জেলা / দেবিদ্বারে সাবেক এমপি মঞ্জু মুন্সীর জামিন লাভ : নেতাকর্মীদের উল্লাস
Monjo monsi

দেবিদ্বারে সাবেক এমপি মঞ্জু মুন্সীর জামিন লাভ : নেতাকর্মীদের উল্লাস

মোঃ আক্তার হোসেনঃ–
চাঁদাবাজীর মামলায় বিএনপি দলীয় দেবিদ্বারের সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সী স্থায়ী জামিন লাভ করেছেন। রোববার দুপুরে কুমিল্লার ২য় যুগ্ম জেলা জজ রোকন উদ্দিন কবিরের আদালতে হাজির হয়ে তিনি এ জামিন লাভ করেন। এ সময় আদালত প্রাঙ্গনে উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মীরা উল্লাস প্রকাশ করেন।
জানা যায়, কুমিল্লা-৪ দেবিদ্বার আসনের বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীসহ দলের ১৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১৮ মার্চ উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের জাকির হোসাইন দেবিদ্বার থানায় চাঁদাবাজীর একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছিল, ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে মামলার বাদীকে উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নে (জাকির হোসেন) বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেয়ার জন্য গত বছরের ২৯ ফেব্রুয়ারি সাবেক এমপি মঞ্জু মুন্সী, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, বিএনপি নেতা আবুল কাসেম, রউফ খান, উপজেলা যুবদল সভাপতি রেজাউল করিম শাহীন ভিপি সহ অভিযুক্ত অন্যান্যরা ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে তাকে আটক করে জোরপূর্বক চেকে স্বাক্ষর নেয়া হয়। ঘটনার একমাস পর ওই অভিযোগ দেবিদ্বার থানায় ৩৬৫/৩৮৫/৩৮৬/৫০৬/১০৯/১১৪/৩৪ দ:বি. ধারায় এফআইআর করা হয়। এ মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন নেয়ার পর রোববার মঞ্জু মুন্সী কুমিল্লার আদালতে হাজির হয়ে স্থায়ী জামিন লাভ করেন। এ সময় দেবিদ্বার উপজেলা বিএনপির বিপূল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। এ ব্যাপারে দেবিদ্বার উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন জানান, সাবেক এমপি মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীর বিরুদ্ধে দায়ের করা এ মামলার অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন ছিল। কারণ বাদী নিজেই অন্য একজনকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচনী মাঠ থেকে লাপাত্তা হয়ে যান, পরে তিনি অন্যদের প্ররোচনায় এই মিথ্যা মামলাটি দায়ের করেন। বিবাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এড. খন্দকার মিজানুর রহমান।

Check Also

fdfsrfd

দেবিদ্বারে শিশু মেলা ও ‘শিশু ও নারী উন্নয়নে যোগাযোগ কার্যক্রম ৪র্থ পর্যায় শীর্ষক আলোচনা

এবিএম আতিকুর রহমান বাশার : ‘ফাইনাল পরীক্ষায় নানা সুযোগ সুবিধা প্রাপ্ত হয়ে অতিরিক্ত নম্বর ও ...